R³- Rakib’s Recruitment Rule; নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রশ্নকর্তাদের প্রশ্নের ধরনের একটি মানদণ্ড

কাজী রাকিবউদ্দিন আহমেদ

একজন মানবসম্পদ কর্মী হিসেবে আমাকে বিভিন্ন ইন্টারভিউ বোর্ডে চাকুরিপ্রার্থীদের ইন্টারভিউ নিতে হয়। অনেক সময় বাইরের প্রতিষ্ঠান থেকেও আমি অতিথি নির্বাচক হিসেবে আমন্ত্রিত হই। বলার অপেক্ষা রাখেনা যে ইন্টারভিউ বোর্ডে অনেক বিচিত্র এবং মজার অভিজ্ঞতা হয়েছে আমার। বোর্ডের দুপাশ থেকেই।

আমি নিজেই যখন কোন ইন্টারভিউ বোর্ডে প্রার্থী হিসেবে গিয়েছি অথবা প্রশ্নকর্তা হিসেবে বসে আছি সহপ্রশ্নকর্তাদের প্রশ্ন শুনছি, কিছু কিছু ক্ষেত্রে আমি নিজেই লজ্জাবোধ করেছি প্রশ্নের ধরন এবং বুদ্ধিমত্তার দৌড় দেখে। ইন্টারভিউ বোর্ডে একজন প্রশ্নকর্তা হিসেবে বসলেই আমার একটা চিন্তা মাথায় খুবই ঘুরপাক খেতে থাকে তা হলো আমার কোন প্রশ্নের কারনে প্রার্থীর আত্মসন্মানবোধে যেন আঘাত না লাগে অথবা আমার কোন ভুল সিদ্ধান্তে আমার প্রতিষ্ঠান একজন সঠিক, প্রতিভাবান কর্মী না হারায়।

অজ্ঞতার কারনেই হোক অথবা ঐতিহ্যগতভাবে অভ্যাসবশতই কারনেই হোক ইন্টারভিউ বোর্ডে আমাদের প্রশ্নকর্তাদের একটি ভাব থাকে যেটা অনেকটা এরকম যেন চাকুরিপ্রার্থী একজন ভিক্ষুক এবং প্রশ্নকর্তা যাকাতের শাড়ী বিতরণ করছেন। ২০১৬ সালে আমরা যদি মোঘল আমলের চিন্তাধারায় বা পদ্ধতিতে একটি আধুনিক প্রতিষ্ঠানের জন্য একজন সৎ, নিষ্ঠাবান, প্রতিভাবান, সর্বযোগ্য কর্মী নির্বাচন করতে চাই তাহলে এটা কোনরকমেই মানাবে না। রাজকীয় ঘোড়ার গাড়িতে যতই আভিজাত্য থাকুক না কেন শহরে চলাচলের জন্য আমাদের আধুনিক, নতুন মডেলের গাড়িতেই চড়তে হবে। একইভাবে যে পদ্ধতিতে আজ থেকে ৫০ বছর আগে সঠিক প্রার্থী বাছাই করা হত সেই পদ্ধতি এখন অবাস্তব এবং অকার্যকর। দুঃখজনকভাবে এখনো সরকারি নিয়োগ পদ্ধতিতে এবং অনেক দেশিয় বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলিতে নিয়োগের অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ-মৌখিক পরীক্ষাগুলোতে (face to face interview) উদাহরণস্বরূপ- ostrich পাখি কত মাইল বেগে দৌড়াতে পারে বা সূর্য ও চন্দ্রের মধ্যে দূরত্ব কত, এধরনের অনেক বাস্তববর্জিত প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। সাধারণ জ্ঞানের নামে এ প্রশ্নগুলো শুধু শুধুই একজন চাকুরিপ্রার্থীকে একটি বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলে।

সরকারি, বেসরকারি, ডিফেন্স, দেশি বা বিদেশি (বহুজাতিক) প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যপদ্ধতিসমূহ থেকে শুরু করে নিয়োগনীতিতে ভিন্নতা থাকতেই পারে এবং তা ইন্টারভিউ বোর্ডেও পরিলক্ষিত হতে পারে এবং এটিই স্বাভাবিক। তবে কিছু মৌলিক বিষয়কে আদর্শগতভাবে একজন প্রশ্নকর্তার মেনে চলা উচিত যাতে একজন প্রার্থী কোন অবস্থাতেই বিব্রতকর পরিস্থিতিতে না পরেন। মৌলিকভাবে প্রশ্নকর্তার খেয়াল রাখা উচিত প্রাসঙ্গিক প্রশ্নের মাধ্যমেই একজন যোগ্য প্রার্থীকে চিহ্নিত করতে হবে। প্রাঞ্জলভাবে একটি ইন্টারভিউয়ের অভিজ্ঞতা নিয়েই যেন একজন প্রার্থী ইন্টারভিউ বোর্ড থেকে বের হন, এবং তাতে প্রার্থী যদি নির্বাচিত নাও হন তাতে প্রতিষ্ঠানটির সম্পর্কে বিরুপ মনোভাব জন্ম নেবে না।

এইসব কিছু চিন্তা করেই গত দেড়দশকের ওপরে ইন্টারভিউ বোর্ড এবং প্রার্থীদের ব্যাপারে আমার মনে একটি বিশেষ চিন্তার জায়গা সৃষ্টি হয়, যার ফসল হিসেবে প্রশ্নকর্তাদের প্রশ্নের ধরনের একটি মানদণ্ড নির্ণয় করার সমর্থ হয়েছি বলে আমি বিশ্বাস করি। আমার গভীর বিশ্বাস যেটাতে প্রশ্নকর্তা ও চাকুরিপ্রাথী উভয়পক্ষই উপকৃত হবেন।
আমি এটিকে ৫টি ধাপে ভাগ করেছি।
যেগুলো নিম্নরূপঃ
১। নিয়মানুগঃ ইন্টারভিউয়ের শুরুতেই চাকুরিপ্রার্থীকে অবশ্যই একটি রিলেক্সিং অবস্থায় আনতে হবে যাতে পুরো ইন্টারভিউয়ের অভিজ্ঞতা তার একটি সুখকর পরিস্থিতি দিয়ে শুরু হয়।
২। অর্থপূর্ণঃ অবশ্যই মুল্যবহ প্রশ্ন করতে হবে যেটি তার চাকুরির সাথে সামাঞ্জসস্যপূর্ণ।
৩। কৌশলীঃ এমনভাবে এই পর্যায়ে কিছু প্রশ্ন তার কাছে তুলে ধরতে হবে, আপনি যেটি তাকে প্রত্যক্ষভাবে প্রশ্ন করলে তার সঠিক জবাব নাও পেতে পারেন।
৪। প্রাসঙ্গিকঃ অপ্রাসঙ্গিক বা অবান্তর কোন বিষয়ের যেন অবতারণা না হয়। প্রশ্নগুলি প্রাসঙ্গিক বিষয়ের মধ্যেই থাকতে হবে।
৫। চিন্তাশীলঃ এমন প্রশ্ন করতে হবে যেন প্রার্থী তার মেধা, চিন্তাশীলতাকে বা সৃজনশীলতা ব্যবহার করতে পারেন।

এই উপরের বিষয়গুলোকে মাথায় রেখে তাকে ইংরেজিতে আমি S.M.A.R.T নামকরণ করেছি যেটাকে মহামান্য বাংলাদেশ সরকার মৌলিক মেধা সম্পত্তি হিসেবে আমার নামে নিবন্ধন করেছেন যার নাম দেওয়া হয়েছে R³ Rakib’s Recruitment Rule । এই মানদণ্ড সমূহ কিংবা R³ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আপনারা আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন নিম্নে আমার ইমেইল অ্যাড্রেস এবং সেলফোন নম্বর আপনাদের জ্ঞাতার্থে দেয়া হল।

লেখকঃ Chief Human Resources Officer , Karnaphuli Fertilizer Company Limited (KAFCO)

ইমেইলঃ rakib1.ahmed@gmail.com

সেলফোনঃ ০১৭১৩০৬০০৮৬

 

5 Comments

  1. Respected sir,
    This article is very informative, I have learned many things from this article. I would like to know more details about this topic R³ Rakib’s Recruitment Rule. It will help me more to rich my knowledge.
    Thanks again such a nice article & hopefully we will get again InsaAllah.

    • সুন্দর মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। অনুগ্রহপূর্বক আরএমজি জার্নালের সাথে থাকুন। আপনাকে আমাদের লেখা পড়ার ও সম্ভব হলে লেখার অনুরোধ জানাচ্ছি ।
      ইমেইলঃ chanchal@musician.org
      sms on facebook page: https://www.facebook.com/rmgjournal/
      ভাল থাকবেন। শুভকামনা।

    • সুন্দর মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। অনুগ্রহপূর্বক আরএমজি জার্নালের সাথে থাকুন। আপনাকে আমাদের লেখা পড়ার ও সম্ভব হলে লেখার অনুরোধ জানাচ্ছি ।
      ইমেইলঃ chanchal@musician.org
      sms on facebook page: https://www.facebook.com/rmgjournal/
      ভাল থাকবেন। শুভকামনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*